বিনিয়োগ ছাড়াই বিশ্বস্ত অনলাইন অর্থ উপার্জন করার ওয়েব সাইট । Online Money Making Sites

Earn Money Online
Spread the love

যেমন আমরা ব্লগিং থেকে কি করে টাকা ইনকাম করতে হয়, এই আর্টিকেলটার মত অনলাইনে এরকম কতগুলো ওয়েবসাইট এর সম্বন্ধে আজকে আমরা কথা বলবো যেখান থেকে আপনি উইথআউট এনি ইনভেসমেন্ট টাকা ইনকাম করতে পারবেন এবং এই আর্টিকেলটি আমার লিখতে আজকে খুব বেশী ভালো লাগছে কারণ এরকম টাইপের জিনিস আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করতে আমার খুব ভালো লাগে এবং আজ থেকে পাঁচ বছর আগে আমি যখন ব্লগিং চালু করেছিলাম তখন কিন্তু আমি ডাইরেক্টলি কিন্তু ব্লগিং চালু করিনি। আমি এরকম অনেক কিছু কাজ করছিলাম যেটা থেকে আমি চেষ্টা করেছি যে কি করে অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে হয়।  তারপরে আস্তে আস্তে খুঁজতে খুঁজতে, হয়তো আমাকে তখন মোটামুটি এক বছর মত সময় লেগেছিল জানতে যে ব্লগিং থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।

এটা অবশ্য আলাদা ব্যাপার যে আজকালকার দিনে এত ইউটিউবে ভিডিও আছে এত কিছু আছে যে লোকেরা ভিডিও দেখে জানতে পেরে যাচ্ছে যে ব্লগিংয়ের থেকে টাকা ইনকাম করা যায় এবং তারা নিজেরা ইউটিউবে বলছে যে কি করে তা করতে হয়। কিন্তু আমি যখন পাঁচ বছর আগে চালু করেছিলাম তখন কিন্তু এরকম কিছু ছিল না।

আজকে আমরা কথা বলবো যে এরকম কতগুলো ওয়েবসাইট যার মাধ্যমে আপনি ইনভেসমেন্ট না  করে এবং আপনার মধ্যে যদি একটু ক্রিয়েটিভিটি থাকে তাহলে আপনি আপনার ক্রিয়েটিভিটি থেকেই ইউজ করে আপনি কিন্তু হাজার হাজার নয়  লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারেন। এবং আমরা জানি যে আস্তে আস্তে আমাদের দিন আমাদের যে যুগটা কোন দিকে এগোচ্ছে। আমরা সবাই ডিজিটাল যুগে এগোচ্ছি। আজকালকার দিনে সবার হাতে মোবাইল আছে। পার্সোনালি আমি যদি আমার এক্সপেরিয়েন্স শেয়ার করি আমি যখন মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিলাম তারপরে আমি একটা ছোট্ট একটা মোবাইল কিনেছিলাম যেটাতে প্রত্যেক মাসে আমি 1 জিবি ডেটা ইউজ করতে পারতাম।  কিন্তু আজকালকার দিনে প্রত্যেকদিন দেড় জিবি পর্যন্ত ডেটা কিন্তু কম পড়ে যায় এবং আমি মাধ্যমিকের পরে মোবাইল কিনেছিলাম, আজকালকার দিনে কিন্তু ক্লাস ফোর ফাইভে ছেলেমেয়েদের হাতেও কিন্তু 10, 15 হাজার টাকার মোবাইল থাকে। 

তো আমরা বুঝতেই পারছি যুগ কোন দিকে এগোচ্ছে। তো এখনকার দিনে যদি আমরা আমাদের যে রেগুলার কাজকর্ম থাকে তার সঙ্গে যদি এরকম একটা কিছু আমরা খুঁজে বার করতে পারি যেটাতে আমরা মোটামুটি পার্টটাইম কাজ করে, খুব ভালো একটা ইনকাম জেনারেট করতে পারব প্রত্যেক মাসে তাহলে কিন্তু তার থেকে ভালো কিছু হতে পারে না। তাহলে চলুন দেখে নিই এরকম কতগুলো ওয়েবসাইট যেগুলোতে তোমরা আজকে চাইলে আজকে এখন থেকে কাজ করে তোমরা টাকা ইনকাম করা শুরু করতে পারো।  

অনলাইনে টাকা ইনকাম করার জন্য কিছু পয়েন্ট যেগুলো তোমাদেরকে মাথায় রাখতে হবে 

যেমন আমি তোমাদের সব সময় বলি যে অনলাইনে টাকা ইনকাম করাটা কিন্তু সোজা কিন্তু তার জন্য কিন্তু তোমাদেরকে ইউনিক কোন স্কিল থাকতে হবে। সবাই যেমন করছে তুমি যদি সেরকম কিছু করতে শুরু করে দাও তাহলে কিন্তু অনলাইনে সাকসেসফুল হওয়ার যে চান্সটা সেটা কিন্তু তোমার কমে যাবে। তোমাকে যদি অনলাইনে টাকা ইনকাম ভালো করতে হয় এবং তোমাকে যদি অনলাইনে সাকসেসফুল হতে হয়, তাহলে তোমাকে এরকম কিছু ক্রিয়েটিভ করতে হবে যার জন্য লোকেরা তোমাকে পছন্দ করে। এবার তুমি লোকেদেরকে কি করে তোমার কাছে নিয়ে আসবে যাতে  লোকেরা তোমাকে পছন্দ করবে, আমার মনে হয় না সেটা আমাকে তোমাদেরকে বুঝিয়ে দিতে হবে।  

শুরু করার আগে চলো আমি তোমাকে বলে দেই, যে অনলাইনে ইনকাম করা মানে কিন্তু এরকম না যে তুমি আজকে ইনকাম করার জন্যে আজকে কাজ করা শুরু করবে আর কালকে তোমার কাছে টাকা চলে আসবে। তুমি যদি দীর্ঘসময়ের জন্য যদি লাইনে থাকো তাহলে কিন্তু একদিন না একদিন তুমি নিশ্চয়ই সাকসেসফুল হবে। তোমাকে সাকসেসফুল হবার থেকে কিন্তু কেউ আটকাতে পারবেনা। তো নিচে আমি তোমাদেরকে এরকম কতগুলো ওয়েবসাইট এর সম্বন্ধে বলছি যে ওয়েবসাইট গুলো হচ্ছে ইন্ডাস্ট্রি স্ট্যান্ডার্ড।  মানে এখানে কিন্তু কোন রকমে স্ক্যাম হবার কোনোরকমের প্রবলেম নেই এবং এটা বহুদিন ধরে চলে আসছে। এখানে তোমরা যদি কাজ করো তাহলে তোমরা ইনকাম করতে পারবে। 

তোমরা যদি আমার কথা বিশ্বাস করো তাহলে কিন্তু আমি তোমাদেরকে বলতে পারি ফ্রিল্যান্সিং জিনিসটা হচ্ছে আজকালকার দিনের সব থেকে ভালো অনলাইনে টাকা ইনকাম করার সবচেয়ে সহজ উপায়। আমাদের ডিজিটাল ইন্ডাস্ট্রিতে এরকম অনেক অনলাইন ওয়েবসাইট আছে যারা ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ করে এবং তোমরা ওয়েবসাইটগুলোতে নিজের অ্যাকাউন্ট বানিয়ে তোমরা কিন্তু ফ্রিল্যান্সিং কাজ করতে পারো। তুমি ভাবতে পারবে না যে ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট এর মধ্যে তোমরা কত রকমের কাজ করতে পারো। আমি যে ওয়েবসাইট গুলোর কথা বলছি, এই ওয়েবসাইটগুলোতে তোমরা মোটামুটি আঠারোশো রকমের উপরে অনলাইনে কাজ করার ক্যাটাগরি খুঁজে পাবে এবং সেখান থেকে টাকা ইনকাম করতে পারো।

  1. Freelancer.com / freelancer.in
  2. Upwork.com
  3. Designhill.com
  4. Toptal.com
  5.  LinkedIn ProFinder
  6. We Work Remotely.com
  7. Behance.net
  8. SimplyHired.com
  9.  Dribbble.com
  10. Fiverr.com
  11. PeoplePerHour.com
  12. Guru.com
  13.  Angel.co
  14. DesignCrowd.com
  15. 99designs.com
  16. workingnotworking.com
  17. Webflow Experts
  18. YunoJuno.com
  19. Authenticjobs.com

তো আমি তোমাকে বললাম যে এতগুলো ওয়েব সাইট আছে যেখানে তুমি নিজের অ্যাকাউন্ট বানিয়ে নিজের মত কাজ খুঁজে নিতে পারো এবং সেখানে কাজ করে নিজের টাকা ইনকাম করতে পারো। আমি তোমাদেরকে আরে আরো একবার বলছি, তোমরা যদি প্রথমেই ভাবো যে আমরা দু দিনের মধ্যে কিন্তু টাকা ইনকাম করা শুরু করে দেবো, তাহলে কিন্তু তা খুব মুশকিল কাজ হয়ে দাঁড়াবে। এটাতে ইনকাম করতে এবং নিজের প্রোফাইল কে তৈরি করতে কিন্তু সময় লাগবে। ধৈর্য ধরো আর কাজ করে যাও। তোমরা একদিন না একদিন নিশ্চয়ই সফল হবে এবং এতগুলো ওয়েবসাইট আমি তোমাদেরকে দিয়েছি এই ওয়েবসাইট গুলোর মধ্যে কোনোটাতে তোমাদের সুবিধামতো কাজ পাওয়া যাচ্ছে সেটা খুঁজে বার করা হচ্ছে তোমার কাজ। সেই কাজটা তোমরা খুঁজে নাও এবং আজকে থেকে কাজ করা শুরু করো। 

ট্রানস্ক্রিবিং করে টাকা আয়

বন্ধুরা এরপরে আমি যে জিনিসটা নিয়ে তোমাদের সঙ্গে আলোচনা করতে যাচ্ছি, এই জিনিসটা হয়তো তোমরা জানো না।  এই জিনিসটাকে বলা হয় ট্রানস্ক্রিবিং তোর ট্রানস্ক্রিবিং।  ট্রানস্ক্রিবিং হচ্ছে এরকম একটা প্রসেস বলতে পারো বা এরকম একটা মেথড বলা যেতে পারে, যার মাধ্যমে কোনো কিছু কে শুনে শুনে লেখা কে ট্রানস্ক্রিবিং বলা হয়। ধরে নাও কোনরকম ভিডিও আছে, সেই ভিডিওতে যে যে কথাগুলো বলা হয়েছে সেই কথাগুলো কে লিখতে হবে এটাকে ট্রানস্ক্রিবিং বলা হয়। 

এবার তোমরা হয়তো ভাবছো যে এরকম কাজ করেও কি আবার ইনকাম করা যেতে পারে?

 হ্যাঁ অফকোর্স এরকম কাজ করে ইনকাম করা যেতে পারে এবং আমাদের ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে এরকম ওয়েবসাইটস আছে যেখান থেকে তুমি এরকম কাজ নিতে পারো। এবং ওরা তোমাকে একটা ভিডিও বা একটা কোন সাউন্ড দিয়ে দেবে ওই সাউন্ড টা তে যা যা জিনিস বলা হয়েছে, তোমাকে সেটা লিখে দিতে হবে এবং লিখে দেওয়ার জন্য তোমাকে ওরা টাকা দেবে।  তো সেরকম কিছু ওয়েবসাইট আমি তোমাদের কে নিচে দিয়ে দিলাম, যেখানে তুমি এরকম টাইপের কাজ করতে পারো।  তো তোমরা হয়তো ভাবছো যে এটা তো খুব সহজ কাজ। শুনবো আর লিখব তাতে আবার কঠিন কি আছে? সেটা যে কেউ করতে পারে।  কিন্তু প্রবলেমটা হচ্ছে যে, এই কাজ করার জন্য কিন্তু তোমাকে অনেক বেশি স্পিডে টাইপ করা জানতে হবে। তোমরা যদি খুব আস্তে আস্তে টাইপ করো তাহলে তো তোমাদের অনেক সময় লেগে যাবে। তাতে তোমাদের ইনকাম টা একটু কম হবে। তো তোমরা যত স্পিডে টাইপ করতে পারবে শুনে শুনে, ততো বেশি তোমাদের ইনকাম হবে। এবং এটাতে কোন টেনশন নেই।  তোমরা কিন্তু এই যে স্পিডে টাইপিং জিনিসটা কিন্তু খুব সহজেই শিখতে পারো। তোমরা যদি কিছুদিন ভালো মতো করে প্র্যাকটিস করো তাহলে কিন্তু তোমরা খুব স্পিডে টাইপ করতে শিখে যাবে। 

  1. https://www.transcribeme.com/
  2. https://go-transcribe.com/
  3. https://scribie.com/
  4. https://www.rev.com/

ব্লগ্গিং এর মাধ্যমে টাকা আয়

বন্ধুরা এরপরে আমি তোমাদের সঙ্গে যে জিনিসটা শেয়ার করতে যাচ্ছি সেই জিনিসটা হচ্ছে আমার সবথেকে প্রিয়। এবং এই জিনিসটা সম্বন্ধে হয়তো তোমরা অলরেডি জানো। তো সেই জিনিসটা হচ্ছে ব্লগিং। হ্যাঁ বন্ধুরা তোমরা ব্লগিং করে ও কিন্তু খুব ভালো রকম টাকা ইনকাম করতে পারো। তাও আবার ঘরে বসে এবং ব্লগিং কি করে করতে হয়, পুরো প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত step-by-step কি করে তোমরা ব্লগিং থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবে, সেই ব্যাপারে কিন্তু আমি অলরেডি একটা পোস্ট লিখে রেখেছি। তোমরা চাইলে কিন্তু সেই পোস্টটা দেখতে পারো। 

সবার প্রথমে বন্ধুরা তোমাদেরকে বলবো যে ব্লগিং করে কি করে টাকা ইনকাম করবেন। সবথেকে ভালো হচ্ছে ব্লগিং করে টাকা ইনকাম করার জন্য সেটা হচ্ছে তোমার ওয়েবসাইটে তুমি চাইলে ads show  করতে পারো এবং আমাদের এই ডিজিটাল যুগে এখনো পর্যন্ত অনেকগুলো ভালো ভালো এড্স  নেটওয়ার্ক আছে যাদের সঙ্গে তুমি যদি কোলাবরেট করে, তোমার ওয়েবসাইটে ads show  করতে পারো। 

Google Adsense: Ads show করার জন্য কতগুলো ভাল যে কোম্পানি আছে, তাদের মধ্যে সর্ব থেকে শ্রেষ্ঠ যেটা হচ্ছে সেটা হচ্ছে গুগল এডসেন্স। এবার গুগল এডসেন্স হচ্ছে Ads নেটওয়ার্কের মধ্যে সবথেকে ভালো কোম্পানি।  কারণ আমরা সবাই জানি যে গুগোল কত ভালো একটা কোম্পানি এবং এডসেন্স হচ্ছে গুগোল এর একটা প্রোডাক্ট। তোমরা গুগল এডসেন্স এর সঙ্গে নিজের ওয়েবসাইটকে জুড়ে দিয়ে তোমরা চাইলে গুগল এডসেন্সের এড তোমার ওয়েবসাইট এ দেখাতে পারো। এবং সেই ads যদি কেউ দেখে এবং তোমার ads এ যদি কেউ ক্লিক করে, তাহলে কিন্তু তোমরা গুগোল অ্যাডসেন্সে থেকে টাকা পেতে পারো।

Media.net: তো গুগল এডসেন্স হচ্ছে সবথেকে ভালো একটা ads নেটওয়ার্ক। এর পরে আমরা কথা বলব যে গুগল এডসেন্স এর পরেই media.net হচ্ছে আরেকটা ভালো এড নেটওয়ার্ক। গুগল এডসেন্স যেমন হচ্ছে গুগল এর প্রোডাক্ট, media.net হচ্ছে Yahoo  আর Bing এর প্রোডাক্ট। media.net হচ্ছে গুগল এডসেন্স এর মতই এডস নেটওয়ার্ক। তোমরা চাইলে media.net এর মাধ্যমেও কিন্তু এড শো করে নিজের ওয়েবসাইটে ইনকাম করতে পারো। 

PropellerAds: এরপরে বন্ধুরা আমরা যে নেটওয়ার্কের কথা বলব সেটা হচ্ছে PropellerAds.  PropellerAd হচ্ছে বন্ধুরা অনেক ভালো একটা Ads নেটওয়ার্ক, যার মাধ্যমে তোমরা banners, sponsored links, push notifications এই সব জিনিসকে এলাও করে তোমরা এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করতে পারো।

এই তিন টি Ads নেটওয়ার্ক ছাড়াও অনেক গুলো ভালো ads নেটওয়ার্ক আছে , যাদের কে ব্যাবহার করে তোমরা তোমাদের ওয়েবসাইট থেকে ভালো রকম আয় করতে পারবে।

  • Amazon Native Shopping Ads
  • Adversal
  • Sovrn //Commerce (Formerly VigLink)
  • Skimlinks
  • Monumetric
  • InfoLinks
  • ylliX
  • Evadav
  • PopCash
  • PopAds
  • RevContent
  • Adsterra
  • SHE Media
  • AdRecover
  • MadAds Media
  • Bidvertiser
  • Adbuff
  • BuySellAds
  • AdClickMedia

এফিলিয়াট মার্কেটিং করে টাকা আয়

বন্ধুরা এরপরে আমরা যেই জিনিসটা সম্বন্ধে কথা বলবো সেটাকে বলা হচ্ছে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং। আমি যখন ব্লগিং সম্বন্ধে কথা বলছি এবং ব্লগিং এর থেকে কি করে আপনারা টাকা ইনকাম করতে পারেন, সেই হিসেবে যখন কথা বলছি।  তখন যদি আমি এফিলিয়েট নেটওয়ার্কের সম্বন্ধে যদি তোমাদের সঙ্গে কথা না বলি তাহলে কিন্তু বন্ধুরা এটা তোমাদের সঙ্গে সত্যি বেইমানি করা হবে। আর আমি চাই না যে তোমাদের সঙ্গে বেইমানি করতে।

তো অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং হচ্ছে এরকম একটা ব্যাপার যেটা তোমাদের ওয়েবসাইটে যখন ভালো রকম ট্রাফিক যখন আসতে শুরু করে দেবে, তখন কিন্তু তোমরা গুগল এডসেন্স বা যেকোন রকমের Ads নেটওয়ার্ক এর থেকেও বেশি, এফিলিয়েট নেটওয়ার্ক ইউজ করে কিন্তু তোমরা অনেক বেশি টাকা ইনকাম করতে পারো। তো এফিলিয়েট নেটওয়ার্ক যেমন amazon.com এ তোমরা চাইলে নিজের একাউন্ট বানাতে পারো এবং অ্যাফিলিয়েট একাউন্ট বানিয়ে ওখানকার কোন প্রোডাক্ট যদি তুমি তোমরা ওয়েব সাইটে অ্যাড করো এবং তোমার ওয়েবসাইটে যে লিংকটা দেওয়া আছে সেই লিঙ্কটাতে যদি ক্লিক করে কেউ যদি ওই জিনিসটাকে purchase করে ,তাহলে কিন্তু তোমরা কিছু কমিশন পাও।

এবার তোমার মনে হচ্ছে হয়তো যে এই জিনিসটা করে তোমরা কত ইনকাম করতে পারবে? কিন্তু আমি তোমাদেরকে বন্ধুরা আমার পাঁচ বছরের এক্সপেরিয়েন্স থেকে বলছি, তোমার ওয়েবসাইটে যদি ভাল রকম ট্রাফিক থাকে, তাহলে তোমরা এফিলিয়েট নেটওয়ার্ক ইউজ করে কিন্তু গুগল এডসেন্স এর থেকেও অনেক বেশি টাকা চাইলে ইনকাম করতে পারো।আমাজন ছাড়াও আমি তোমাদের সঙ্গে কিছু Affiliate Networks শেয়ার করছি যেখানে তোমরা বিভিন্ন রকমের প্রোডাক্টস পেয়ে যাবে তোমার ওয়েবসাইট এ প্রোমোট করার জন্যে।

  • vCommission
  • Commission junction
  • ShareASale

শেষ কথা

তো বন্ধুরা আমি তোমাদের সঙ্গে এরকম কিছু ওয়েবসাইট শেয়ার করলাম যার মাধ্যমে তোমরা ঘরে বসে ছোটখাটো কাজ করে ভালো রকম টাকা কিন্তু ইনকাম করতে পারো। কিন্তু বন্ধুরা এই আর্টিকেলটি শেষ করার আগে আমি তোমাদের সঙ্গে এটা আরেকবার শেয়ার করতে চাই, যে তোমরা যদি কোনরকম ভালো কিছু তোমাদের ট্যালেন্ট থাকে বা কোনরকম যদি ক্রিয়েটিভ কিছু করতে পারো, তাহলে কিন্তু অনলাইনে সাকসেসফুল হওয়ার চান্স টা অনেক বেশি বেড়ে যায়। তো আমি তোমাদেরকে সাজেস্ট করবো, তোমরা যদি অনলাইনে এরকম কিছু অলরেডি করতে পারো, তাহলে তোমরা তো খুব সহজে টাকা ইনকাম করতে পারবে।

আর যদি করতে না পারো, তাহলে তোমরা জিনিসটা শিখতে পারো। শিখে তারপরে কিন্তু ইনকাম করতে পারো। এরকম না যে তোমরা কোনদিন সাকসেসফুল হতে পারবে না এবং আজকাল ইউটিউবে অথবা গুগলে তোমরা যদি কিছু শেখার জন্য সার্চ করো, তাহলে ফ্রি অনেক কোর্স তোমরা অনলাইনে পেয়ে যাবে এবং সেই কোর্স করে কিন্তু তোমরা জিনিসটাকে আয়ত্ত্ব করতে পারো। এবং খুব ভালো রকম ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করতে পারো। তো বন্ধুরা তোমাদের যদি এই আর্টিকেলটা ভালো লেগে থাকে, তাহলে কিন্তু আর্টিকেলটা জরুর তোমার বন্ধু-বান্ধব এবং প্রত্যেকটা পরিবারের লোকের সঙ্গে তোমরা শেয়ার করতে পারো তাহলে কিন্তু হয়তো কারোরে আর্টিকেলটা পড়ে হয়তো তাদের সুবিধা হবে এবং নিজের ভবিষ্যৎ বানানোর ক্ষেত্রে তাদেরকে সাহায্য করবে।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *